আর্জেন্টিনা বিদায় অলিম্পিক থেকে


টোকিও অলিম্পিক থেকে আর্জেন্টিনা বিদায় নিল। আর্জেন্টিনা অলিম্পিকের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠতে পারল না। কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করতে স্পেন সাথে আর্জেন্টিনা ম্যাচটি জয় আনার প্রয়োজন ছিল আর্জেন্টিনা গ্রুপ পর্বে কোয়ার্টার ফাইনালে ম্যাচটি জিততে পারেনি। স্পেনের সাথে ম্যাচটি ১-১ গোল হয়ে ড্র হয়েছিল ম্যাচটি।

আর্জেন্টিনার বিদায়ের দিনে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছে মিশর। অস্ট্রেলিয়া অনূর্ধ্ব-২৩ দলকে ২-০ গোলে হারিয়ে কোয়ার্টারের খাতায় নাম লিখিয়েছে তারা।

ম্যাচের ৮৭ মিনিট পর্যন্ত ১-০ গোলে এগিয়ে ছিল স্পেন। শেষ মুহূর্তের গোলে হার এড়ায় আর্জেন্টিনা। ড্র করলেও গ্রুপপর্ব পার হতে পারেনি তারা। রাজ্যের হতাশা নিয়ে এখানেই থেমে গেছে তাদের অলিম্পিক যাত্রা।

স্প্যানিশরা ম্যাচের শুরু থেকে আর্জেন্টিনাকে অনেক চাপে রেখেছিল। তবে প্রথমার্ধে কোন গোল করতে পারেনি। গোলশূন্য ড্র করে বিরতিতে যায় দু'দল। বিরতি থেকে ফিরে লিড নেস স্পেন। ম্যাচের ৬৬ মিনিটে গোল করেন মিকেল মেরিনো।

৮৭ মিনিটে ঘুরে দাঁড়ায় আর্জেন্টিনা। দলের ত্রাতা হয়ে গোল পরিশোধ করেন থমাস বেলমুন্তে। শেষ পর্যন্ত ১-১ গোলের সমতায় শেষ হয় ম্যাচ। আর তাতেই বিদায়ঘণ্টা বাজে আর্জেন্টিনার।

আরেকদিকে মিশর ও অস্ট্রেলিয়া ম্যাচের কপাল পুড়লো অস্ট্রেলিয়া।শুরু থেকে সমানতালে পাল্লা দিলেও হেরেছে অস্ট্রেলিয়া। ৪৪ মিনিটে গোল করে এগিয়ে যায় মিশর। এরপর ৮৫ মিনিটে আমার হামদি গোল করে মিশরের জয় নিশ্চিত করেন।  

তিন ম্যাচে পাঁচ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের শীর্ষে থেকে কোয়ার্টার নিশ্চিত করেছে স্পেন। ৩ ম্যাচে ৪ পয়েন্ট নিয়ে তাদের সঙ্গী হয়েছে মিশর। সমান পয়েন্ট নিয়েও গোল ব্যবধানে পিছিয়ে থাকায় বাদ পড়েছে আর্জেন্টিনা। ৩ ম্যাচে ৩ পয়েন্ট নিয়ে সবার শেষে থেকে শেষ করেছে অস্ট্রেলিয়া।

কোয়ার্টার ফাইনালে নিশ্চিত ভাবে ব্রাজিল সেলেসাওরা। সেলেসাওরা 'ডি'-গ্রুপে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে রয়েছে। রিচালিসেনার দুই গোলে ৩-১ ব্যবধানে তারা জয় হয়েছে এবং কোয়ার্টার-ফাইনাল উঠেছে ।


0/Post a Comment/Comments