মামাদের বিপক্ষে বাংলাদেশের ক্রিকেট দলের সম্ভাব্য একাদশ


পাঁচ টি-টোয়েন্টি হবে অস্ট্রেলিয়া-বাংলাদেশ এ দু'দলের মধ্যে। পাঁচ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি তে অংশগ্রহণ করবেন অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশের সাথে। করোনার কারণে তারা জলদি সৃষ্টি শেষ করার চিন্তাভাবনা নিয়েছেন।১১ দিনের মধ্যে সিরিজ শেষ করবেন। এক সপ্তাহে তারা পাঁচটি টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলে তাদের দেশে ফিরে যেতে চান।

দীর্ঘ চার বছর পর অস্ট্রেলিয়া-বাংলাদেশ আসলো টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে। আগেও আসার কথা ছিল অস্ট্রেলিয়াদের কিন্তু করোনর কারণে তারা বাংলাদেশে খেলতে আসতে পারিনি।

কাল ৩ আগস্ট বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচ শুরু হতে যাচ্ছে। সন্ধ্যা ৬টায় মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে খেলাটি অনুষ্ঠিত হবে। চার বছরে তপস্যা প্রথম টি-টোয়েন্টি শুরু হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ অস্ট্রেলিয়ার সাথে শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে। 

এই সফরে পূর্ণশক্তির দল নিয়ে আসেনি অস্ট্রেলিয়া। সিরিজে নেই স্টিভেন স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, অ্যারন ফিঞ্চ, প্যাট কামিন্সদের মত অসি তারকারা।

ম্যাথু ওয়েডের নেতৃত্বাধীন অস্ট্রেলিয়া দলে অভিজ্ঞদের মধ্যে আছেন মিচেল স্টার্ক, জশ হ্যাজলউড, মিচেল মার্শ, এডাম জাম্পা। বাকি সবাই তুলনামূলক অনভিজ্ঞ। 

একই অবস্থা বাংলাদেশ দলের। স্বাগতিকরাও পূর্ণশক্তির দল মাঠে নামাতে পারছে না এই সিরিজে। দলে নেই অভিজ্ঞ তিনজন ফ্রন্টলাইন ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম আর লিটন দাস। ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টি সিরিজে এই তিনজনের সার্ভিস পাবে না বাংলাদেশ। 

বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ: মোহাম্মদ নাঈম, সৌম্য সরকার, সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), আফিফ হোসেন, শামিম হোসেন, নুরুল হাসান সোহান, নাসুম আহমেদ, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, তাসকিন আহমেদ ও শরিফুল ইসলাম। 

অস্ট্রেলিয়ার সম্ভাব্য একাদশ: জশ ফিলিপি, বেন ম্যাকডারমট, মিসেল মার্স, অ্যালেক্স কেরি/ময়েস হেনরিক্স, ম্যাথুওয়েড (অধিনায়ক), অ্যাস্টন টার্নার, ডেন ক্রিস্টিয়ান, অ্যাস্টন আগার, মিসেল স্টার্ক, অ্যাডাম জাম্পা ও জশ হ্যাজলউড।

0/Post a Comment/Comments