শুরু হবে বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড সিরিজ!



কখন শুরু হবে বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড সিরিজ ম্যাচ।
অস্ট্রেলিয়া ও বাংলাদেশ ৫ টি-টোয়েন্টি সিরিজ কিছু দিন আগে খেলে গেছে। সেখানে বাংলাদেশ সিরিজ জয় পেয়েছে। আর এখন অস্ট্রেলিয়ার পর দেশে খেলতে আসার কথা নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দলের।

নিউজিল্যান্ড-বাংলাদেশে ৫ টি টোয়েন্টি ম্যাচ খেলতে আসবেন। তাই দর্শকে কথা মাথায় রেখে বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড এর মধ্যে ৫ টি টোয়েন্টি ম্যাচগুলো এগিয়ে আনা হতে পারে।

নিউজিল্যান্ড দেশের দর্শকের কথা মাথায় রেখে সন্ধ্যায় যে ম্যাচ গুলো হওয়ার কথা ছিল তা হয়তো বা বিকেলে
শুরু হতে পারে।

আজ সোমবার ১৬ (আগস্ট) সংবাদ সম্মেলনে 
বিসিবি প্রধান নিবার্হী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন 
টিম ম্যানেজমেন্ট বিকেল চারটা থেকে বাংলাদেশ
ও নিউজিল্যান্ড সিরিজে ম্যাচগুলো পরিকল্পনা চলছে।

জিএমটি অনুযায়ী, নিউজিল্যান্ডের সময় বাংলাদেশের চেয়ে ৬ ঘণ্টা এগিয়ে। বাংলাদেশ সময় অনুযায়ী, সন্ধ্যায় ম্যাচ শুরু করলে নিউজিল্যান্ডের দর্শকদের জন্য তা মধ্যরাত। আর তাই দর্শকদের কথা বিবেচনা করে ম্যাচের সময় এগিয়ে আনার কথা ভাবছে। যদিও এখনও আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেওয়া হয়নি ম্যাচ শুরুর সময়ের ব্যাপারে।

নিজামউদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘এখন পর্যন্ত আমাদের যে পরিকল্পনা, নিউজিল্যান্ডের সাথে যেহেতু আমাদের সময়ের বেশ পার্থক্য রয়েছে। এছাড়া তাদের দর্শকদেরও একটা ব্যাপার আছে। সবকিছু বিবেচনা করে টিম ম্যানেজমেন্টের সাথে আলোচনা করেছি। চারটায় খেলা শুরু করার পরিকল্পনা আমাদের রয়েছে।’

আগামী ১ সেপ্টেম্বর শুরু হবে দুই দলের মধ্যকার পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। ৩, ৫, ৮ ও ১০ সেপ্টেম্বর সিরিজের বাকি চারটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। সিরিজের প্রতিটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে মিরপুরের শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে।

বাংলাদেশ সফরের জন্য ১৫ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড। সোমবার রাতে দল ঘোষণা করে তারা। আসছেন না নিয়মিত অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন ছাড়াও মূল দলের বেশিরভাগ খেলোয়াড়। পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে আগামী ২৪ আগস্ট কিউইরা বাংলাদেশ সফরে আসবে।

উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান টম লাথাম বাংলাদেশের বিপক্ষে নেতৃত্ব দেবেন। তবে, দলে নেই কেন উইলিয়ামসন, টিম সাউদি, টেন্ট বোল্ট, কাইল জেমিসন, ডেভন কনওয়ে, মার্টিন গাপটিল, জিমি নিশানদের মতো তারকা খেলোয়াড়রা।

অস্ট্রেলিয়া সিরিজে পাওয়া আত্মবিশ্বাস কাজে লাগলেও টাইগারদের স্কিল কোন পর্যায়ে আছে, তা যাচাই করতে নিউজিল্যান্ড সিরিজে স্পোর্টিং উইকেট গড়ার পরামর্শ দিয়েছেন ক্রিকেট বিশ্লেষক নাজমুল আবেদীন ফাহিম। তিনি বলেন, ‘এবার অন্তত সাহস দেখানো উচিত বাংলাদেশের, খেলা উচিত স্পোর্টিং উইকেটে।’

এদিকে, টার্নিং উইকেটে ব্যাটসম্যানরা দুর্দান্ত কিছু করতে না পারলেও, তাদের সামর্থ্যের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী ঘরোয়া ক্রিকেটের সফলতম ব্যাটসম্যান তুষার ইমরান। আরব আমিরাতের কন্ডিশনেও মুস্তাফিজ-শরীফুলরা বাজিমাত করতে পারবেন, মনে করছেন সিনিয়র এই ক্রিকেটার।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে আসন্ন সিরিজে স্পোর্টিং উইকেটের পক্ষে থাকলেও টাইগার ব্যাটারদের পারফরম্যান্সে আশার আলো দেখছেন তুষার ইমরান। আরব-আমিরাতের কন্ডিশনে আস্থা মুস্তাফিজের কাটারেও। সঙ্গে সাইফুদ্দিন-শরীফুলরা প্রত্যাশিত পারফরম্যান্স করতে পারলে বিশ্বকাপে ভালো করার সম্ভবনাও দেখছেন ঘরোয়া সার্কিটের সফলতম এই ক্রিকেটার।

0/Post a Comment/Comments