সাকিবসহ দুই পরিবর্তন শেষ টি-টোয়েন্টিতে!



চলছে বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া টি-টোয়েন্টি সিরিজ। পাঁচ টি-টোয়েন্টি ম্যাচের মধ্যে তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশ দুই ম্যাচ হাতে রেখেই জয় পেয়েছে অস্ট্রেলিয়ার সাথে সেইসঙ্গে পাঁচ টি-টোয়েন্টি সিরিজ এর মধ্যে তিনটি ম্যাচ জয় হয়ে বাংলাদেশ সিরিজ জয় প্রাপ্ত হয়েছে।

বাংলাদেশের লক্ষ্য ছিল অজিদের হোয়াইটওয়াশ করা 
কিন্তু চতুর্থ ম্যাচটি বাংলাদেশ অস্ট্রেলিয়ার সাথে হেরে গেছেন। আর অস্ট্রেলিয়া চতুর্থ ম্যাচ জিতে তাদের মান বাঁচিয়ে রেখেছেন। 
সিরিজ জয়ের পর শেষ ম্যাচ খেলবেন না সাকিব আল হাসান ও শরিফুল ইসলাম এই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিসিবি।

যদিও চতুর্থ ম্যাচ জিতলে প্রেক্ষাপট ভিন্ন হতো। শেষ ম্যাচে জিতে অস্ট্রেলিয়াকে হোয়াটওয়াশ করার চেষ্টায় অবশ্যই খেলতেন মিস্টার সেভেন্টি ফাইভ। কিন্তু সেই শ্রীলঙ্কা সিরিজ থেকে ‘বায়োবাবল’ তথা জৈব সুররক্ষা বলয়ে থাকতে থাকতে মানসিকভাবে ক্লান্ত সাকিব আল হাসান। পরিবার থেকেও লম্বা সময় হলো দেশান্তরী হয়ে আছেন।

বাংলাদেশ যেহেতু সিরিজ জিতেছে। আর হোয়াইটওয়াশের সুযোগও আর নেই। তাই পরিবারের কাছে ছুটে যেতে টিম ম্যানেজমেন্টের কাছে ছুটি চেয়েছেন সাকিব। ব্যাপারটি টিম ম্যানেজমেন্ট ইতিবাচক ভাবে নিয়ে সাকিবের ছুটি মঞ্জুর করেছে। সব কিছু ঠিক থাকলে আগামী ১১ আগস্ট রাতে পরিবারের কাছে ছুটে যেতে ঢাকা থেকে যুক্তরাষ্ট্রের আকাশে উড়াল দেবেন সাকিব আল হাসান।
তবে আগামী ২৪ আগস্ট নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের বাংলাদেশের ক্যাম্পে যোগ দেবেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। এর আগে প্রিমিয়ার লিগ চলাকালীন, মোহামেডানের সুপার লিগের ম্যাচগুলো না খেলেই সাকিব যুক্তরাষ্ট্রে চলে যান। সেখান থেকেই দলের সঙ্গে সরাসরি যোগ দেন জিম্বাবুয়েতে।

তবে অজিদের বিপক্ষে ৫ ম্যাচ সিরিজে ৪র্থ ম্যাচে মোটেও ভালো করেননি সাকিব। ৬, ৬, ৬, ০, ৬, ৬! সাকিবের বলে মিরপুরে ঝড় তুলেন অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যান ড্যানিয়েল ক্রিস্টিয়ান। লং অন, ওয়াইড লং অন, মিডউইকেট, মিডউইকেট, লং অন- এ অঞ্চল দিয়ে পাঁচটি ছক্কা মেরেছেন ক্রিস্টিয়ান। শনিবার (৭ আগস্ট) ম্যাচ শেষেও অধিনায়ক ম্যাথু ওয়েড বলেছেন, খেলার পার্থক্য গড়ে দিয়েছে সাকিবের ওই ওভারটি। এ বিষয়ে ক্রিস্টিয়ান বলেন, সাকিবের ওপর আক্রমণের আলাদা পরিকল্পনা ছিল। পরের ব্যাটসম্যানদের কাজটা সহজ করতেই এমন ব্যাটিং করেছি।
সাকিবের বদলে শেষ টি-টোয়েন্টিতে কপাল খুলছে আরেক স্পিন অলরাউন্ডার মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের। পেসার শরিফুলের জায়গায় সুযোগ পেতে যাচ্ছেন সাইফউদ্দিন। অবাক হলেও সত্যি ওপেনিংয়ে মিঠুনের কথা শোনা গেলেও, বাজে ফর্মে থাকা সৌম্য সরকারকে দিয়েই ইনিংস উদ্বোধন করানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে টিম ম্যানেজমেন্ট।
সিরিজের ৫ম তথা শেষ ম্যাচে সোমবার (৯ আগস্ট) বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশঃ সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ নাঈম, আফিফ হোসেন, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), নুরুল হাসান সোহান, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, শামীম পাটোওয়ারী, মাহাদী, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, নাসুম আহমেদ ও মুস্তাফিজুর রহমান।

0/Post a Comment/Comments